Uncategorized

Barbaroslar Episode 14 Bangla Subtitles

বারবোসলার ভলিউম ১৪

 ……. (ফিরে দেখা)……

হৃদয়ের সুপ্ত অনুভূতির প্রকাশ আর ভ্রাতৃত্বের বিজয়ের মাধ্যমে শেষ হলো বারবোসলার সিরিজের আরো একটি পর্ব। ভূমধ্যসাগরের প্রতিশ্রুত দুই বীরের পরিচয় পর্বের দর্শক হয়ে রইলো এই পর্ব…..

সুলতান মুহাম্মাদ আল ফাতিহঃ
——————————————
বারবোসলার সিরিজের মুহাম্মাদ আল ফাতিহ র চরিত্রে অভিনয় করা লোকটিকে আমার পছন্দ হয়নি তেমন।কিন্তু,ফাতিহ নামটা এতই প্রভাবশালী যে,বারোতম পর্বের সাত আট মিনিটের সময়টা যেনো পুরো সিরিজের সবচেয়ে অর্থবহ মূহুর্তে পরিণত হলো।সুলতানের দ্বিতীয় ও তৃতীয় লাল আপেলের পরিচয়,দরবেশ হুসাইনের দায়িত্ব আর মহান সুলতানের মৃত্যুর সাক্ষাৎ হলো এই পর্ব।
গত পর্বে দরবেশ বলেছিলেন, ❝আমরা সৃষ্টি,তাই স্রষ্টার প্রজ্ঞা আর উদ্দেশ্য আমাদের বুঝে আসে না❞
সুলতান মুহাম্মাদ আল ফাতিহের মৃত্যুও তেমন এক রহস্য।প্রাচ্যের রাজধানী কন্স্টান্টিনোপল জয় করে সুলতানের উদ্দেশ্য ছিল প্রতিচ্যের রাজধানী রোম।সুলতানের শেষ যাত্রা ছিল ইতালির উদ্দেশ্যে,,,কিন্তু…….
সুলতান পারেননি,, নয়তো ইতিহাসের শ্রেষ্ঠ দুই রাজধানীতে ইসলামের পতাকা উড়তো…..
সুলতান পারেননি,কারন আল্লাহর ইচ্ছা ছিলো ভিন্ন।

আকিনজি প্রধান হুসাইন পাশা (দরবেশ):
——————————————
সিরিজের অতি পরিচিত চরিত্র অথচ রহস্যময় লোক ছিলেন ”দরবেশ বাবা”।তার পরিচয়,উদ্দেশ্য সবকিছুই ছিলো ধোঁয়াশায় পূর্ণ। এই পর্বে মুহাম্মদ আল ফাতিহের সীলমোহরকৃত ছুরির সূত্র ধরে বিবৃত হলো তার আত্মপরিচয়।উন্মোচিত হলো তার উদ্দেশ্য, আর তার উপর অর্পিত দায়িত্বের ফিরিস্তিও প্রকাশ পেলো। ভূমধ্যসাগরে ইসলামের পতাকা উড়াতে সুলতান বেছে নিয়েছিলেন তাকে,কিন্তু সুলতানের মৃত্যুর মাধ্যমে সমস্ত পরিকল্পনা নষ্ট হয়ে যায়।পরবর্তী সুলতান দ্বিতীয় বায়েজিদ খান মনে উচ্চাভিলাষ রাখতেন না।তাই ভূমধ্যসাগর বিজয়ও আর বাস্তবায়িত হয়নি।হুসাইন পাশা সুফিদের কাছ থেকে তালিম নিয়ে পুরোপুরি দরবেশ বনে যান।
আর নিভৃতে অপেক্ষায় রইলেন,কবে আসবে সেই তলোয়ার আর কলম!!! যাদের মিলনে তৈরি হবে এক অব্যর্থ অস্ত্র।ভূমধ্যসাগরজুড়ে ধ্বনিত হবে “আল্লাহু আকবার” ধ্বনি….
হুসাইন পাশা তলোয়ার আর কলমের সন্ধান পেয়ে গেছেন,,,
অরুজ রইসের ভাষায়,, ❝হিজিরের জ্ঞান আমাদের শক্তি যোগাবে আর আমার তরবারি কাফেরদের উপর আপতিত হবে ইন-শা-আল্লাহ❞

মুহিউদ্দিন পিরি রইসঃ
——————————————
মুহিউদ্দিন পিরি রইসের আগমনের মধ্য দিয়ে আরো একটি গুরুত্বপূর্ণ চরিত্র পেলো বারবোসলার সিরিজ।বিখ্যাত উসমানি নৌসেনাপতি কামাল রইসের ভাতিজা পিরি রইসের জন্ম ১৪৭০ সালে।বিশ্বের প্রথম পূর্নাঙ্গ মানচিত্র অঙ্কনকারী পিরি রইস এই সিরিজের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ চরিত্র হতে চলেছেন আমার ধারণামতে।কারণ,কোন দূর্গ দখল করতে সে দূর্গের মানচিত্র সম্পর্কে জানার বিকল্প নেই।পিরি রইস তাই কালিম্নোসের মানচিত্র আঁকছেন।পিরি রইসের ইচ্ছা, তিনি একদিন পুরো ভূমধ্যসাগরের মানচিত্র আঁকবেন,,,তিনি পুরো পৃথিবীর মানচিত্র আঁকবেন।তারপর সে মানচিত্র উসমানি রাষ্ট্রের কাছে অর্পন করবেন তিনি।
বাস্তবে তিনি সেটা পেরেছিলেন,, উসমানিদের এতো এতো সাফল্যের রহস্য হয়তো লুকিয়ে আছে পিরি রইসের মানচিত্রে…….

ইসাবেলঃ
——————————————
এই প্রথম সিলভিওর চোখে সত্যিকারের অশ্রু দেখতে পেয়েছিলাম। “ইউনিটা” নামক মোহে পুত্র কন্যা কে হারিয়ে নিঃস্ব এক লোকের অশ্রু দেখেছে দর্শক। ইসাবেলের আনন্দও ছিলো দেখার মত,কিন্তু সে আনন্দকে মাটি করতে সময় নেয়নি কিলিচওগ্লো শাহবাজ বে।তার নিষ্ঠুরতা আর নিজের পাপে জ্বলতে হলো সিলভিওকে।
অন্যদিকে ইসাবেল যেনো নতুন আশ্রয় পেলো,তার মুখে অকৃত্রিম হাসির রেশ দেখা গেলো এই পর্বে। বিশেষ করে,অরুজ যখন বললেন,, ❝সে আমার সম্মান,,তাকে রক্ষা করা আমার সম্মানের বিষয়।❞ ইসাবেল যেনো নতুনভাবে বাঁচার কারণ খুঁজে পেলেন। যে জীবনে ভালোবাসার মতো মানুষ থাকবে,পথ চেয়ে থাকার মতো একটা মানুষ থাকবে।

এফেন্দি পিয়েত্রো ও মারিয়া
––––––––––––––––––––––––––––––––
মারিয়ার মাঝে হারিয়ে যাওয়া বোনকে খুঁজে পাওয়ার চেষ্টা আর অসহায় দৃষ্টিপাত এফেন্দি পিয়েত্রোর সমস্ত কুকর্মকে প্রতিনিয়ত যেনো ভুলিয়ে দিচ্ছে।এর সাথে বিরহী এক সূরের মূর্ছনায় দর্শকদের মাতিয়ে রাখছেন পরিচালক। পরিচালক আর কতটি পর্বজুড়ে এভাবে দর্শকদের পোড়াবেন আল্লাহ ই জানেন!
এদিকে এফেন্দি পিয়েত্রোর ব্যাপ্টাইজড পুত্র কালিম্নোসে পৌঁছে গেছে।পিয়েত্রোর নতুন অস্ত্র হতে যাচ্ছে সে………..

শাহবাজ আর আমির কারাবায় বিরক্তি যেনো দিনদিন বাড়িয়ে তুলছেন,,আর ফিরোজা হাতুনের কথা বাদই দিলাম।বেচারি হুমা হাতুনের হিংসায় পুড়ে কয়লা হয়ে যাচ্ছে একেবারে।

পর্ব ১৪ বাংলা সাবটাইটেল

ভিডিও দেখতে প্লে বাটনে ক্লিক করে কয়েক সেকেন্ড অপেক্ষা করুন। ভিডিও প্লে হলে, যারা ১ ক্লিকে ডাউনলোড করতে চান তারা ১ নং সার্ভার  ব্যাবহার করুন। প্লেয়ারের ডাউনলোড বাটনে ক্লিক করুন তারপর ডাউলোডের একটা অপশন পাবেন, সেখানে ক্লিক করলেই অতিরিক্ত কোন এ্যাপস ছাড়াই ডাউনলোড করতে পারবেন।

 

১ নং সার্ভার 720 HD (ক্লিক ডাউনলোড) 

 

২ নং সার্ভার 720 HD

এ সার্ভার থেকে আপনারা অতিরিক্ত এ্যাপস ব্যাবহার করে যে কোন রেজুলেশন (144p, 240p, 360p, 480p, 720p, 1080p ভিডিও ডাউনলোড করতে পারবেন।

 

 

 

৩ নং সার্ভার 1080 Full HD

এ সার্ভার থেকে আপনারা অতিরিক্ত এ্যাপস ব্যাবহার করে যে কোন রেজুলেশন (144p, 240p, 360p, 480p, 720p, 1080p ভিডিও ডাউনলোড করতে পারবেন।


Disclaimer:
This content is provided and hosted by a 3rd party server.
Sometimes these servers may include advertisements.
onubadmedia.com does not host or upload this material and is not responsible for the content

&nbsp

 

Related Articles

6 Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button